Tech News

মেসির জার্সির বিনিময়ে ৫০,০০০ করোনা ভাইরাসের টিকা পাচ্ছে লাতিন ফুটবলাররা

lionel-messi

বর্তমান সময়ের সবচেয়ে ভয়াবাহ করোনা ভাইরাস সারা বিশ্বকে গ্রাস করে ফেলেছে। করোনা ভাইরাসের দ্বিতীয় ঢেউ আস্তে আস্তে ভয়ঙ্কর রূপ ধারণ করছে। আগের বছরের চেয়ে এই বছরে বেশি ভয়াবাহ পরিস্থিতি হতে চলেছে। লাতিন আমেরিকায় এর প্রভাব আরো বেশি।

সেই জন্য নিজের দেশের ফুটবলারদের করোনা সংক্রমণ থেকে সুরক্ষা থাকার জন্য নানা উপায়ে দক্ষিণ আমেরিকান ফুটবলার কনফেডারেশনকে (কনমেবল) সহায়তা করেছেন বার্সেলোনার তারকা লিওনেল মেসি।

মেসি তার নিজের স্বাক্ষর করা ৩টি জার্সি দিয়েছেন কনমেবলকে। এই জার্সির বিনিময়ে সংস্থাটিকে ৫০,০০০ করোনা ভাইরাসের ভ্যাকসিন দিবে চিনের করোনা টিকা নির্মাতা প্রতিষ্ঠান সিনোভ্যাক।

মেসি এই কথাটি কাউকে না জানিয়ে নিরবেই করেছিলেন। তবে এই কথাটি জনসম্মুখে আসে কনমেবলের ডিরেক্টর অব ডেভেলপমেন্ট গঞ্জালো বেলোসোর টুইটারের একটি টুইট থেকে।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে তিনি লিখেছেন “কনমেবলের জন্য আমরা ৫০,০০০ করোনা ভাইরাসের ভ্যাকসিন পাওয়ার কথা জানাচ্ছি। এছারা আরো জানাতে চাই সিনোভ্যাকের পরিচালক ধন্যবাদ জানিয়েছে মেসিকে। কারণ মেসি সিনোভ্যাকে ৩টি জার্সি পাঠিয়েছেন। এই অর্জনের আংশ মেসিও”।

এই করোনা ভাইরাসের ভ্যাকসিনের একটি অংশ উরুগুইয়ান ফুটবল ফেডারেশনে যাবে। এই করোনা মোকাবেলায় ভালো ভূমিকা রখতে পারিনি উরুগুইইয়ের সরকার। দেশটিতে গড়ে ১০৮৫ জন আক্রান্ত হচ্ছে প্রতি মিলিয়নে। তাছাড়া আর্জেন্টিনার ১ম বিভাগের ২৬টি দলের জন্য এই টীকা পাঠান হবে। আর্জেন্টিনাতেও ভয়ঙ্কর রূপ ধারণ করেছে করোনা ভাইরাস। সে জন্য দেশটির সরকার কঠিন লকডাউন ঘোষণা করেছে।

এই বছরের জুনে কোপা আমেরিকা অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে কলোম্বিয়া ও আর্জেন্টিনায়। এই আসরটি চলবে ১জুন থেকে ১০ জুলাই ১ মাস পর্যন্ত । আসরটি গতবছর হওয়ার কথা ছিল। করোন ভাইরাসের কারণে এই আসরটি পিছিয়েছিল। এই আসরটি এক বছর পিছিয়ে দিলেও করোনা কারণে আবারো এ আসর মাঠে গরানো নিয়ে আশঙ্কা দেখা দিয়েছে। তবে এই করোনা টিকা ফুটবলারদের মাঝে কিছুটা স্বস্তি এনে দিবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *